১৪ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। মনের গভীরে জমে থাকা ভালোবাসা প্রতিদিন, প্রতি মুহূর্তে নানা কায়দায় প্রকাশ করছে তার প্রিয় মানুষের কাছে। আর তাই বিশ্ব ভালোবাসা দিবসটি সবার মনকে ভালোবাসার রঙে রাঙিয়ে দিতে বছর ঘুরে আসছে ভালোবাসা দিবস প্রিয় মানুষের প্রতি ভালোবাসা প্রকাশের অন্যতম উপায় উপহার। যদিও তিন বছর আগে ছ্যাকা খাওয়ার পর এখন পর্যন্ত আমার আর নতুন কোন ভ্যালেন্টাইন হইনি তাই আমি আজ রাতে এবং কাল দিনে মোটামোটি বেকারই আছি। আর বেকার সময়টা কাজে লাগানো যায় কিভাবে, ভাবতে ভাবতে অবশেষে ভাবলাম কিছু একটা লিখা যাক ভালোবাসা দিবস বা ভ্যালেন্টাইন নিয়ে। যাক মূল আলোচনায় ফিরে আসি, যেহুতু ভালোবাসা প্রকাশের অন্যতম উপায় উপহার তাই হয়ত বা আপনিও চাইবেন আপনার ভ্যালেন্টাইন কে কোন না কোন উপহার দিতে। যাই গিফট দেন না কেন এবারের ভ্যালেন্টাইনে তার সাথে আপনি দিতে পারেন কিছু সুন্দর সুন্দর ছবি ভ্যালেন্টাইন গিফট হিশাবে। আর এই গিফট দেওয়ার জন্য আপনার তেমন সময়ও অপচয় করতে হবে না। শুধু দরকার আপনার ভ্যালেন্টাইনের কিছু ছবি, ব্যাস এবার শুধু নির্দিস্ট স্টেপগুলা ফলো করে বানিয়ে নিন আপনার ভ্যালেন্টাইনের জন্য সুন্দর কিছু গিফট। প্রথম স্টেপঃ প্রথমেই কিছু ছবি যোগার করুন! (শুধু মুখের ছবি হলেই বেশী ভাল হবে।) দ্বিতীয় স্টেপঃ এই লিংকে ক্লিক করুন! / www.en.picjoke.net/tag/For+lovers! তিতিয় স্টেপঃ নির্দিস্ট ডিজাইন সিলেক্ট করে ছবি আপলোড দিন! এবার ক্রেট পিকচার এ ক্লিক করুন! চতুর্থ স্টেপঃ অপেক্ষা করুন আশা করি দেখতে পাচ্ছেন আপনার ভ্যালেন্টাইনের সুন্দর চেহারাটা! এবার ডান ক্লিক করে ইমেজটি সেভ করে নিন। ব্যাস হয়ে গেল। পঞ্চম স্টেপঃ যদি ভাল লেগে থাকে তাহলে এবং এই পক্রিয়া অ্যাপলাই করেন তবে অবশ্যই আপনার ভ্যালেন্টাইন কে আমার পক্ষ থেকে ভালবাসা জানিয়ে দিবেন...:P ধন্যাবাদ আশা করি সবার ভ্যালেন্টাইন দিন ভাল যাবে!ইসলামের পথ কুরআনের আলো ঢাকায় এখনে সেখানে নবীজির জীবন কাহিনী প্রিয় মা বাংলাদেশ লাইফ স্টাইল সবুজ বাংলাদেশ 

ন্যয় প্রতিবাদের কাছে পরাজিত যুগে যুগে শত অবিচার অন্যায়!

যে পারে চোখ কান বন্দ রাখতে তার মুখ থাকে ভার, তার সামনে চলতে পারে শত অন্যায়ের অভিসার! যার মনে নেই প্রতিবাদী তেজ সে চোখ কান বন্দ রাখে, অন্যায়ের শত পদচারনেও তার কন্ঠ রুদ্ধ থাকে!!

অন্যায় যে সহে তার মনে থাকে অন্যায় করার প্রবনতা, অন্যায়ের উদ্দীপনায় বন্দী রাখে তার প্রতিবাদী কথা। মুখ আর মনের সমন্নয়ে যেখানে অন্যায় করে এবং সয়, সেখানে নৈতিকতার ”মূল” তার অতিয্য হারায়!!

নৈতিকতা যখান থাকবেনা সেখানে কিসের সমাজিকতা? অনৈতিক আচরনে সমাজে দেখা দেবে অসংগতি দূর্বিষ ব্যথা! সমাজের প্রতিবাদী মানুষ সইবেনা ব্যথার তরঙ্গ, প্রতিবাদ করে প্রতিরোধ করবে হয়ে তারা এক সঙ্গ।

ন্যয় প্রতিবাদের কাছে পরাজিত যুগে যুগে শত অবিচার অন্যায়, প্রতিবাদী মানুষকে শত প্রতিকুলতায়ও থাকতে হয় অভয়!

 

সংগ্রহ করেছেনঃ মোহাম্মাদ মেহেদি মেনাফা

Related posts

Leave a Comment